উহানে ফের করোনার হানা, পাঁচজনের নমুনায় মিলল ভাইরাস

0
3

করোনার উৎপত্তিস্থল হিসেবে গত কয়েক মাস ধরে বারবার শিরোনামে ওঠে এসেছে চীনের উহান শহর। অনেকের ধারনা, সেখানকার মাছের বাজার থেকে ছড়িয়েছে করোনা, কেউ বলছেন উহানের ভাইরোলজি ল্যাবরেটরি থেকে নাকি বেরিয়ে এসেছে করোনাভাইরাস।

তবে সব বিতর্ক পিছনে ফেলে উহান করোনা মুক্ত হয়েছে। কিন্তু ঠিক এক মাস পর ফের হানা দিল সেই অভিশাপ। ৩ এপ্রিলের পর নতুন করে সেখানে করোনা সংক্রমনের খবর আসছে। উহানে পাঁচজন ব্যক্তির শরীরে মিলেছে করোনার উপস্থিতি।



গত ৩ এপ্রিল শেষবার করোনা আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল উহানে। এরপর থেকে একরকম করোনামুক্ত হয়ে গিয়েছিল উহান। কিন্তু এবার ফের আক্রান্তের খবরে আতঙ্ক বাড়ল। লকডাউন উঠিয়ে নেওয়ার পর পুনারায় করোনার সংক্রমণ হওয়ায় অনেকেরই ধারণা করোনা থেকে হয়তো মুক্তি পাওয়া অসম্ভব।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছেন, যে দেশগুলো কঠোর লকডাউন তুলে নিয়েছে এবং লোকেরা আরো নির্বিঘ্নে চলাফেরা করছে তাদের মধ্যে করোনার সংক্রমণ বৃদ্ধির সম্ভাবনা রয়েছে। চীন সাম্প্রতিক সপ্তাহগুলোতে চলাফেরায় নিষেধাজ্ঞাগুলো সহজ করছে এবং নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সংখ্যাও নেই বললেই চলে।



উহানের স্থানীয় কর্তৃপক্ষ বলছে, করোনা সংক্রমণের কয়েকটি নতুন কেস পাওয়া গেছে। গত ৮ এপ্রিল কঠোর লকডাউন উঠিয়ে নেওয়ার পর প্রথম এই কমিউনিটি সংক্রমণের খবর পাওয়া যায়।

এদিক, শুধু উহানেই নয়, শুলান শহরেও ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। রাশিয়ার সঙ্গে সীমান্তবর্তী প্রদেশ জিলানের এই শহরে নতুন করে ১১ জনের শরীরে করোনা পাওয়া গেছে।



শুলানে করোনার সংক্রমণ পাওয়ার পরই সামরিক আইন জারি করা হয়েছে। সেই সঙ্গে লকডাউনও ঘোষণা করা হয়েছে। গ্লোবাল টাইমসের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, সরকারি আদেশে সকল খোলা জায়গা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সকল ধরনের যানবাহন বন্ধ রয়েছে। শহরটির সকল নাগরিকদের ঘরে থাকতে বলা হয়েছে। প্রতিদিন এক পরিবারে একজন সদস্যকে বাড়ির বাইরে বের হতে বলা হচ্ছে।

SHARE
Previous articleদেশে ২৪ ঘন্টায় করোনা সংক্রমনের সংখা হাজার অতিক্রম করল

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here